1. admin@asianexpress24.com : admin :
  2. asianexpress2420@gmail.com : shaista Miah : shaista Miah
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
শিরোনাম
রাজারহাটে পানিবন্দি মানুষের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ কুড়িগ্রামে কমছে বন্যার পানি:দেখা দিয়েছে পানিবাহিত রোগ লোহাগড়া ভূমি অফিস ও ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক কুড়িগ্রামে র‍্যাবের মহাপরিচালকের বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে ত্রান বিতরণ বন্যায় বিশ্বনাথে ৮১ কোটি টাকার ক্ষতি  কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদ উদ্যোগে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ লোহাগড়ায় পরিচ্ছন্নতা ও সৌন্দর্য্যবর্ধন কর্মসূচির উদ্ধোধন রৌমারীতে ৪৮বোতল ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার-১ ফুলবাড়ীতে দুই কেজি গাঁজাসহ দুই নারী গ্রেফতার নওগাঁয় ৩ মাস ধরে গৃহবন্ধী অসহায় এনতাজ আলীর পরিবার, চলাচল করেন পুকুরে সাঁতার কেটে লোহাগড়ায় বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ী ইউনিয়নে পানি বন্দি একশত পরিবারের মাঝে চাউল বিতরন বৈরাগী বাজারে জমজমাট নৌকার হাট: বন্যা এলে নৌকার কদর বাড়ে ভারতের উত্তর প্রদেশে ১ দিনে বজ্রপাতে মৃত-৩৮ ফুলবাড়ীতে অন্য প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও প্রশ্নপত্র দিয়ে ষাণ্মাষিক সামষ্টিক মূল্যায়ণ পরীক্ষা নেয়ার অভিযোগ

দহগ্রামের ১০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে তালা ঝুলে দিন-রাত

  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৯ জুন, ২০২১
  • ৩৮৪ Time View

রাকিব হোসেন,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ দহগ্রাম-আঙ্গোরপোতা ১০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল উদ্বোধনের ১০ বছর পার হলেও হচ্ছেনা কোন প্রকার স্বাস্থ্যসেবা। দহগ্রামবাসীকে দেওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ১০ শয্যার হাসপাতালে প্রতিনিয়ত ঝুলে আছে তালা। সঠিক জনবল থাকলেও কোনো ঘোষণা ছাড়াই হাসপাতালটি সব সময় বন্ধ থাকে। এতে স্বাস্থ্য সেবা থেকে বঞ্ছিত হচ্ছে দহগ্রাম-আঙ্গোরপোতাবাসী।

দেশের বহুল আলোচিত সাবেক ছিটমহল লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার একটি ইউনিয়ন দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা। ১৯৮৫ সালে দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহল একত্রে পাটগ্রাম উপজেলার একটি স্বতন্ত্র ইউনিয়ন (দহগ্রাম ইউনিয়ন) হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ১৯৮৯ সালের ১৯ আগস্ট এখানে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্বোধন করা হয়।

২০১১ সালে ১৯ অক্টোবর দহগ্রাম সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দহগ্রামবাসীর স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে ১০ শয্যার হাসপাতাল উপহার দেন। সেই থেকে সরকারি কাগজ কলমে হাসপাতালটিতে সেবা দেওয়া হলেও বাস্তবে ভিন্ন।

এখানে আন্তঃবিভাগ-বর্হিবিভাগে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও কোনো কারণ বা ঘোষণা ছাড়াই কয়েক বছর ধরে আন্তঃবিভাগ বন্ধ রয়েছে। বহির্বিভাগে চিকিৎসা দিতে মাঝে মধ্যে কিছু প্যারাসিটামল ট্যাবলেট নিয়ে দুই ঘণ্টার জন্য হাসপাতাল খুলে বসেন দু-একজন ওয়ার্ডবয় ও নার্স। মাঝে-মধ্যে চিকিৎসকও আসেন, তবে নিয়মিত নন। আর এলেও দুপুর ১২টার মধ্যে হাসপাতালে তালা ঝুলিয়ে চলে যান তারা। দুপুরের পর থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত কারও কোনো সমস্যা হলে চিকিৎসা নিতেও ছুটতে হয় পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানা যায় , উদ্বোধনের দিন থেকে দহগ্রাম হাসপাতালে আন্তঃবিভাগ-বর্হিবিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এ হাসপাতালে মেডিকেল অফিসারের চারটি পদ পূর্ণ থাকলেও দু’জন চিকিৎসক ৮/৯ বছর ধরে অলিখিত ছুটিতে। এমবিবিএস দুই জন চিকিৎসক খাতা কলমে এ হাসপাতালে নিয়োগপ্রাপ্ত হলেও বাস্তবে তাদের কোনো সন্ধান নেই খোদ সিভিল সার্জনের কাছেও। বাকি দু’জন বেতন ভাতা তুললেও বাস্তবে কর্মস্থলে নেই। উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার দু’টি পদের একজন কর্মরত থাকলেও বাস্তবে তিনিও অনুপস্থিত। নার্স চারটি পদের চারজনই এ হাসপাতালের সেবা দেখিয়ে কোন রকম কাজ না করেই তারা বেতন নিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর নিজের তহবিল থেকে দেওয়া দহগ্রাম ইউনিয়নের গুরুতর অসুস্থ মানুষদের উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত যাতায়াতের জন্য দেওয়া এম্বুলেন্স টি এখন পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্যসেবায় ব্যবহার হচ্ছে।
এর থেকে মুক্তি চায় দহগ্রাম বাসি,তারা মেডিকেল টি পুনরায় চালু করে সেবা গ্রহনের আশায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকে তাকিয়ে আছে।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। এই ওয়েবসাইটের লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Theme Customized By BreakingNews